হ্যাকিং শুরুর ইতিহাস

১৯৬০ সালে এআইটি ল্যাবের কতিপয় ছাত্র একটি প্রোগ্রামের কিছু শর্টকার্ট বের করেন তারপর থেকে তখন তাদের হ্যাকার বলা হতো। এরপর ১৯৭০ সালে জন ড্রেপার টেলিফোন সিস্টেম হ্যাক করে বিনামূল্যে প্রচুর টেলিফোন করেন আর তখন থেকেই মূলত হ্যাকিং ব্যাপারটা ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ে। হ্যাকিংয়ের জন্য তাকে ঈধঢ়ঃধরহ ঈৎঁহপয নামে উপাধি দেয়া হয়েছিল। তবে হ্যাকিংয়ে উৎসাহ দেয়ার জন্য ১৯৮৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ডধৎমধসবং মুভিটিকে অনেকেই দায়ী করেন। ১৯৮৩ সালে ৪১৪ নামে ছয়জন টিনএজারকে আমেরিকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিস্টেম অকেজো করে দেয় তবে তারা খুব তাড়াতাড়িই পুলিশের হাতে ধরা পডে। ১৯৮৪ সালে প্রথমবারের মতো প্রকাশ হয় হ্যাকারদের ম্যাগাজিন ২৬০০। ১৯৮৬ সালে আমেরিকায় হ্যাকিংয়ের বিরুদ্ধে আইন করা হয়। ১৯৮৭ সালে হার্বাট জিন নামের ১৭ বছর বয়সী হাইস্কুল ছাত্রকে ১৯৮৬ সালের হ্যাকিং আইনে গ্রেপ্তার করা হয় এটিঅ্যান্ডটি ল্যাবের তথ্য চুরির অভিযোগে। ১৯৮৮ সালে ৬০০০ নেটওয়ার্ককে থামিয়ে দেয় তবে তিনি খুব দ্রুত গ্রেপ্তার হন এবং তার ৩ বছরের জেল সঙ্গে ১০০০০ ডলার জরিমানা করা হয়। ১৯৯৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লসএঞ্জেলেস রেডিও স্টেশন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে যেখানে বলা হয় ১০২তম ফোনকারীকে তারা গাড়ি পুরস্কার দেবে। ফেভিন পলসেন রেডিও স্টেশনের টেলিফোন সিস্টেমে হ্যাক করে এমন ব্যবস্থা করেন যাতে তার ফোন ছাড়া অন্য কারো ফোন যেন রিসিভ না হয়। ফলাফল তিনি ঠিকই গাড়ি জিতে নেন। কিন্তু পরে গ্রেপ্তার হয়ে খাটতে হয় ৫১ মাসের জেল। ১৯৯৪ সালে ১৬ বছর বয়সী হড সে প্রায় ১০০ কম্পিউটারের সিকিউরিটি সিস্টেম ভেঙে ফেলে যার মধ্যে নাসা, কোরিয়ান পারমাণবিক সংস্থাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংস্থার নেটওয়ার্ক ছিল। এছাড়া হ্যাকিং জগতে অন্যতম বড় ব্যাংক ডাকাতি করেন রাশিয়ান গণিতবিদ ভøাদিমির লেভিন। তিনি নিউইয়র্কের সিটি ব্যাংক থেকে কাস্টমারদের ১০ মিলিয়ন ডলার নিজের একাউন্টে ট্রান্সফার করেন। ১৯৯৫ সালে তিনি ইংল্যান্ডের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার হন এবং তিন বছর জেল খাটেন। সব টাকাই ফেরত পাওয়া যায় তবে ৪০ লাখ ডলার পাওয়া যায়নি।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s